ব্লগার vs ওয়ার্ডপ্রেস | ব্লগার ও ওয়ার্ডপ্রেসের মধ্যে কোনটি সেরা?

ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস - ব্লগার ও ওয়ার্ডপ্রেসের মধ্যে কোনটি সেরা?

বর্তমানে ব্লগিং প্লাটফর্ম বা ওয়েবসাইট অনেক বেশি হারে বাড়ছে। শুধু আমাদের বাংলাদেশেই টপ লেভেলে যাওয়া ব্লগের পরিমাণ ১০ হাজারের উপরে। তবে ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি বা ব্যবস্থাপনার জন্য বর্তমান সময়ে সবথেকে জনপ্রিয় দুটি প্লাটফর্ম হলো ব্লগার (ব্লগস্পট) এবং ওয়ার্ডপ্রেস

এইজন্য নতুন ব্লগ খুলবেন এমন অনেকে দ্বিধায় পড়ে যায় ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস? কোনটি সেরা? এই দুটির মধ্যে কোনটি কোনদিক থেকে সেরা ব্লগিং প্লাটফর্ম/সিএমএস (কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম) তা আমরা এই আর্টিকেলে আলোচনা করবো। ব্লগার ও ওয়ার্ডপ্রেসের তুলনামূলক এই আলোচনায় আপনিই সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন কোনটি আপনার জন্য প্রযোজ্য বা কোনটি সেরা।

ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস?
Blogger Vs WordPress


ব্লগারের পরিচিতি

ব্লগার এর পূর্বনাম ব্লগস্পট (blogspot.com)। চাহিদার কথা বিবেচনা করে গুগল জায়ান্ট ১৯৯৯ সালে এটি কিনে নেয়। ফুল ফ্রি ব্লগিং প্লাটফর্ম হিসেবে এটার আশেপাশে কেও নেই। একদম বেসিক লেভেলের ওয়েবসাইট থেকে শুরু করে নিউজ পোর্টাল, ম্যাগাজিনের মতো ডাইনামিক ওয়েবসাইট এতে তৈরি করা যায়।

ওয়ার্ডপ্রেসের পরিচিতি

ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে বর্তমান সময়ে সবথেকে বহুল ব্যবহৃত কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম বা ওয়েবসাইট পাবলিশিং প্ল্যাটফর্ম। ম্যাট মুলেনওয়েগ ২০০৩ সালের ২৭শে মে প্রথম ওয়ার্ডপ্রেসকে প্রাথমিকভাবে প্রকাশ করেন। বিশ্বের প্রথম সারির, ৪০,০০,০০০টি ওয়েবসাইটের ১২% এটি ব্যবহার করে। জানুয়ারি ২০২০ পর্যন্ত প্রায় ৯ কোটি বার ওয়াডপ্রেস ডাউনলোড হয়েছে! 

এক কথায় বলতে গেলে সকল প্রকার ডায়নামিক ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়।

আরও দেখুন: Does Changing Your WordPress Theme Affect Your SEO?

ব্লগার ও ওয়ার্ডপ্রেসের মধ্যে তুলনামূলক আলোচনা

নিচে ডিজাইন, সিকিউরিটি, ওয়েবপেজ লোডিং স্পীড, এসইও এবং এডসেন্স প্রাপ্তি এই কয়েকটি ফ্যাক্টর নিয়ে তুলনামূলক আলোচনা করা হলো:

ডিজাইন

ব্লগারে ডিজাইন অনেকটা সিম্পল। মূলত পার্সোনাল ব্লগ কিংবা পোর্টফোলিও টাইপের ওয়েবসাইট তৈরীর জন্য এরকম ডিজাইন ব্লগারে সহজেই করা যায়। তবে ডায়নামিক টুলস টাইপের ওয়েবসাইটগুলো ব্লগারে করা যায় না। কারণ ব্লগারের ভাষা হলো html, xml, JavaScript, css যার কারণে ব্লগারে ওই লেভেলের কোন প্রোগ্রামিং বা ডিজাইন করা সম্ভব হয় না। তাছাড়া ব্লগারের যে টেমপ্লেট এর পরিমাণ রয়েছে ডিজাইনের জন্য তা খুবই সীমিত।

ব্লগারে কোন প্লাগিন ব্যবহার করার সুবিধা না থাকায় সবকিছুর জন্য আলাদাভাবে কোডিং করতে হয়। আর বুঝতেই পারছেন এক্সপার্ট ছাড়া কোডিং তো করতে পারবে না। এক কথায় বলতে গেলে ব্লগারে ডিজাইন সিম্পল কিন্তু এটাকে গর্জিয়াস করতে গেলে প্রচুর খাটতে হয়।

ব্লগ পোস্টে Table of Contents যোগ করুন

আর অন্যদিকে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে যেকোনো ডিজাইনের সাইট বানানো সম্ভব। পোর্টফোলিও সাইট থেকে শুরু করে ডাইনামিক নিউজ পোর্টাল, টুলস, ম্যাগাজিন ও চতুর্থ প্রজন্মের স্মার্ট ওয়েবসাইট বানানো সম্ভব ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে।

ইন্টারনেটে ওয়ার্ডপ্রেসের ডিজাইনের যে টেমপ্লেট বা থিম রয়েছে সেগুলোর পরিমাণ অনেক। আপনি চাইলেই একটি থিম নিয়ে সেটিকে কাস্টমাইজেশনের মাধ্যমে একটি সুন্দর ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। ব্লগার এর বিপরীতে ওয়ার্ডপ্রেসে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের প্লাগিন ব্যবহারের সুবিধা। যার ফলে কোন দরকারে যেকোনো ধরনের প্লাগিন ব্যবহার করা যাচ্ছে, এই কারণে কোন ধরনের কোডিং নলেজ ছাড়াই একটি হাই লেভেলের ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে।

সিকিউরিটি

ব্লগার গুগলের একটি ফ্রি ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম। এটার সার্ভার গুগলের সার্ভার এর সাথে সংযুক্ত। তাই কেউ চাইলেই সহজে আপনার সাইটে ক্ষতি করতে পারবে না বা হ্যাক করতে পারবে না। কারণ স্বয়ং গুগল এটার সিকিউরিটি প্রদান করতেছে।

আর অন্যদিকে ওয়ার্ডপ্রেস এর ক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইট সিকিউরড করার দায়িত্ব আপনার। এক্ষেত্রে ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারী অসতর্ক থাকলে তার সাইটটি হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। অনেক সময় ক্র্যাক বা নাল ওয়ার্ডপ্রেস থিম বা প্লাগিন ব্যবহার করলে ওয়েবসাইট হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে কিছু প্লাগিন এর মাধ্যমে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সিকিউরিটি আপনি বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

এসইও (SEO)

ব্লগারে যদি সবকিছুই ম্যানুয়ালি করতে হচ্ছে এক্ষেত্রে এসইও অপটিমাইজড করাটা অনেক কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। বেশিরভাগ ব্লগারে তৈরি ওয়েবসাইট ওয়ার্ডপ্রেসের মত রেঙ্ক করতে পারে না। তবে ভালোভাবে ডিজাইন, মেটাট্যাগ গুলো সঠিকভাবে বসিয়ে এবং এসইও অপটিমাইজড আর্টিকেল লিখে ব্লগারে করা ওয়েবসাইট রেঙ্ক করা সম্ভব

দেখুন: ব্লগারে কিভাবে এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখবেন

অন্যদিকে ওয়ার্ডপ্রেসকে বলা হয় এসইও বস। ওয়ার্ডপ্রেসের কিছু বিপ্লব ঘটানো প্লাগিন রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই কবুল সহ অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিনে রেংক করতে পারবেন। এগুলোর মধ্যে কয়েকটি হলো Yaost SEO, Rank Math, All in one SEO । এই প্লাগইনগুলো যথাযথ ব্যবহার করতে পারলে আপনার ওয়েবসাইট অবশ্যই গুগলে রেঙ্ক করবে।

ওয়েবপেজ লোডিং স্পীড

অনেক ওয়েবসাইটের মালিক ব্লগার আসে শুধুমাত্র স্পিড এর জন্য। এক কথায় বলতে গেলে ভালো একটি ডিজাইনের ব্লগার ওয়েবসাইটে স্পিড বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ৮০-৯০% হয়ে থাকে। কারণ ব্লগারে খুব সম্ভবত আনলিমিটেড টু ব্যান্ডউইথ ও স্টোরেজ দেওয়া হয় (গুগল এ বিষয়ে ক্লিয়ার করে কিছু বলে নি)

ওয়ার্ডপ্রেস এর ক্ষেত্রে অনেক সময় ওয়েবসাইট স্লো হয়ে যায়। এমনকি সাইড স্পিড ৪০-৬০ এর মত হয়ে যায়। যার ফলে ব্যবহারকারী ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে বিরক্ত হয়ে যায়।

কারণ ওয়ার্ডপ্রেসের জন্য আলাদাভাবে আমাদেরকে সাইট হোস্ট করতে হয়, সাধারণত একটি পার্সোনাল ব্লগের জন্য ১-৫ জিবি পরিমাণ স্টোরেজ ও সীমিত ব্যান্ডউইথ নেওয়া হয়। যার ফলে আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিটরের কারণে স্লো হয়ে যায়।

তাছাড়া বেশি পরিমাণ অতিরিক্ত প্লাগিন ব্যবহার করলে বা হাই ডিজাইনের থিম ইউজ করলেও অনেক সময় ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের স্পিড স্লো হয়ে যায়।

আরও দেখুন: এডসেন্স এডস লিমিট কি? এডস লিমিট হওয়ার কারণ

এডসেন্স প্রাপ্তি

ব্লগার যেহেতু গুগলের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান, তেমনি অ্যাডসেন্স গুগলের আর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। এদিক বিবেচনা করলে ব্লগারে অ্যাডসেন্স প্রাপ্তি ওয়ার্ডপ্রেসের তুলনায় সহজ। তবে আমার কাছে মনে হয় এডসেন্স প্রাপ্তির ক্ষেত্রে এই ফ্যাক্টরটি একদম অযৌক্তিক, অ্যাডসেন্স পাওয়ার মূল ফ্যাক্টর হল কনটেন্ট। কনটেন্ট ভাল থাকলে অবশ্যই এডসেন্স পাবেন সেটা ব্লগারই হোক বা ওয়ার্ডপ্রেসে হোক।

আরো দেখুন: ১০০+ হাই কোয়ালিটি প্রোফাইল ব্যাকলিংক সাইটের লিস্ট

ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস? সিদ্ধান্ত:

তুলনামূলক আলোচনা করে দেখা গেল, কিছু কিছু ক্ষেত্রে ব্লগার ওয়ার্ডপ্রেসের থেকে এগিয়ে আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে ব্লগার ওয়ার্ডপ্রেসের থেকে পিছিয়ে।

এখন কথা হচ্ছে যারা ব্লগিং শুরু করতে চাচ্ছেন তারা কোন প্লাটফর্মকে বেছে নেবেন? ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগার?

আমি সাজেস্ট করবো আপনি একদম প্রফেশনাল লেভেলের ব্লগিং করতে চাইলে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে শুরু করুন। ব্লগারের সময় নষ্ট করার কোন প্রয়োজন নেই। তবে ব্লগার একদমই ফ্রি একটি প্লাটফর্ম আর ওয়ার্ডপ্রেসের জন্য আমাদেরকে আলাদা ভাবে হোস্টিং কিনতে হচ্ছে। এক্ষেত্রে যারা একদমই নতুন তারা ব্লগার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন।

আরেকটি বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখবেন, ব্লগার এর মালিকানা কিন্তু আপনার হাতের নেই আপনি জাস্ট একজন ব্লগার পাবলিশার। গুগল চাইলে আপনার ব্লগ টি ভ্যানিশ করে দিতে পারে। আর অন্যদিকে ওয়ার্ডপ্রেসের সম্পূর্ণ মালিকানা আপনার হাতে।

আশা করি, ছোট্ট আলোচনা থেকে বুঝতে পেরেছেন ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস? কোনটি সেরা? আসলে সত্যি কথা বলতে ব্লগারের সাথে ওয়ার্ডপ্রেস বা ওয়ার্ডপ্রেস এর সাথে ব্লগার এর তুলনা করা যায় না। প্রেক্ষাপট একই হলেও দুটি প্ল্যাটফর্ম কিন্তু আলাদা।

যাইহোক আর্টিকেলটি সম্পর্কে কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করুন। আর আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিতে ভুলবেন না।

Article Top Ads

Ad Middle Article 1

Ad Middle Article 2

Ads Under Articles